বিমান দুর্ঘটনা থেকে বেঁচে গেল বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দল

0

বড় ধরনের বিমান দুর্ঘটনা থেকে বেঁচে গেল বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দল। ফিফা বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপ বাছাইপর্বের ম্যাচ খেলতে ওমানের উদ্দেশে ঢাকা ছাড়ে রোববার রাতে। যদিও বৈদ্যুতিক গোলযোগ দেখা দেয়ায় আকাশে ওড়ার প্রায় ঘণ্টাখানেক পর ফ্লাইটটি ঢাকায় ফিরিয়ে আনতে বাধ্য হন পাইলট।

শেষ পর্যন্ত অপর একটি ফ্লাইটে সোমবার সকালে ঢাকা ছেড়েছে লাল-সবুজরা।বাংলাদেশ বিমানের বিজি ০২১ ফ্লাইটে মাসকটের উদ্দেশে উড়াল দেবার কথা ছিল রাত সাড়ে ৯টায়। সেটি দুই ঘণ্টা পর ছেড়ে গেলেও আবার জরুরি অবতরণ করে। দূঘর্টনার হাত থেকে রক্ষা ১১ ঘণ্টা পর অন্য একটি ফ্লাইটে ঢাকা ছাড়েন ফুটবলাররা।বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) মিডিয়া কর্মকর্তা আহসান আহমেদ অমিত বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, প্রায় এক ঘণ্টা ওড়ার পর বিমানের ভেতর একটি শব্দ হয় এবং সঙ্গে সঙ্গে বিমানের ভেতরের লাইট ও এসি কাজ করা বন্ধ করে দেয়। এসময় বিমানের যাত্রীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।আহসান আহমেদ আরও জানান, এসময় পাইলট বিমানে যান্ত্রিক ত্রুটি দেখা দেয়ার বিষয়টি উল্লেখ করে ঢাকায় ফেরার ঘোষণা দেন। ঘোষণার পর পরই আতঙ্ক আরও বেড়ে যায় বিমানে।

ফুটবলার ও যাত্রীরা ভয় পেয়ে যান। শেষ পর্যন্ত রাত দেড়টার দিকে বিমানটি আবার হযরত শাহজালাল বিমানবন্দরে অবতরণ করে।বাংলাদেশ ফুটবল দলের গোলরক্ষক আশরাফুল রানা বলেন, বিমানের ভেতরে বসেই দেখতে পাই বিদ্যুৎ চলে গেছে। এটা দেখে আমরা খুব ভয় পেয়ে যাই। ক্যাপ্টেন বলছিলেন এভাবে বিমান চালানো ঝুঁকিপূর্ণ। তাই তিনি আবারও বাংলাদেশে ফিরিয়ে আনেন বিমান। আল্লাহর রহমতে বড় একটা দুর্ঘটনার হাত থেকে বেঁচে গেছি আমরা। সত্যি আমরা সবাই ভীষণ ভয় পেয়ে গিয়েছিলাম।

এদিকে ছুটি শেষে আজই সরাসরি ওমানে দলের সঙ্গে যোগ দেবেন প্রধান কোচ জেমি ডে ও অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া। আগামী ১৪ নভেম্বর ম্যাচ হলেও কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নিতে ১০ দিন আগেই ওমানের রাজধানী মাসকাট যাচ্ছে টিম বাংলাদেশ। ২০২২ বিশ্বকাপ ও ২০২৩ এশিয়ান কাপের বাছাইয়ে ‘ই’ গ্রুপে তিনটি ম্যাচ খেলে মাত্র এক পয়েন্ট সংগ্রহ করেছে বাংলাদেশ।

ওমান ম্যাচকে তাই বেশ গুরুত্ব দিচ্ছে জেমি ডে’র শিষ্যরা।ওমানের বিপক্ষে বাংলাদেশ দলগোলরক্ষকআশরাফুল ইসলাম রানা (শেখ রাসেল), শহীদুল আলম সোহেল (আবাহনী), আনিসুর রহমান জিকো (বসুন্ধরা কিংস)রক্ষণভাগটুটুল হোসেন বাদশা (আবাহনী), বিশ্বনাথ ঘোষ (শেখ রাসেল), ইয়াসিন খান (শেখ জামাল), রহমত মিয়া (সাইফ স্পোর্টিং), রিয়াদুল হাসান (সাইফ স্পোর্টিং), ইয়াসিন আরাফাত (সাইফ স্পোর্টিং), রায়হান হাসান (আবাহনী)মধ্যমাঠসোহেল রানা (আবাহনী), জামাল ভূঁইয়া (সাইফ স্পোর্টিং), রবিউল হাসান (আরামবাগ), মামুনুল ইসলাম (আবাহনী), মোহাম্মদ ইব্রাহিম (বসুন্ধরা কিংস), বিপলু আহমেদ (শেখ রাসেল), সাদ উদ্দিন (আবাহনী) আক্রমণভাগনাবিব নেওয়াজ জীবন (আবাহনী), মাহবুবুর রহমান সুফিল (বসুন্ধরা কিংস), মতিন মিয়া (বসুন্ধরা কিংস), আরিফুর রহমান (আরামবাগ), তৌহিদুল আলম সবুজ (বসুন্ধরা কিংস), রকিব হোসেন (রহমতগঞ্জ)  ওয়াই

Share.

About Author

Comments are closed.