সড়ক আইন নিয়ে বাণিজ্য করলে পুলিশের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা : খন্দকার গোলাম ফারুক

0

জার্নাল প্রতিবেদক :

পুলিশের চট্টগাম রেঞ্জের ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুক বলেছেন, সড়ক আইন ২০১৮ বাস্তবায়ন করতে গিয়ে যদি সাধারণ মানুষ হয়রানির শিকার হয় বা কোন পুলিশ যদি বাণিজ্য করে তবে পুলিশের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। কিন্তু জনগণ পুলিশকে সহযোগিতা করতে হবে। অহেতুক কারো বিরুদ্ধে মামলা করার ইচ্ছা পুলিশের নাই। আমাদের মূল উদ্দেশ্য সড়কে শৃঙ্খলা প্রতিষ্ঠা করা।

বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর) সকাল ১১টায় চট্টগ্রাম নগরীর হালিশহরে অবস্থিত জেলা পুলিশ লাইন্স এর পুলিশ সিভিক সেন্টারে অনুষ্ঠিত সচেতনতামূলক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, দেশের প্রতিটি রাস্তায় যেন গাড়িগুলো সুশৃঙ্খলভাবে যাতায়াত করে সেদিকে বিশেষ নজর রাখতে হবে। কারন সড়কে যে দুর্ঘটনাগুলো ঘটে এতে যেমন আমার-অপনার সন্তান বা আপনজন মারা যেতে পারে তেমনি কোন ড্রাইভার অথবা তার সন্তানও মারা যেতে পারে।

খন্দকার গোলাম ফারুক বলেন, মানুষের জন্য আইন। আইনের জন্য মানুষ না। এটি কুরআন বা কোন ধমীয় গ্রন্থ নয় যে তার কোন পরিবর্তন করা যাবেনা। পরিবহন শ্রমিক মালিকের যদি কোন অভিযোগ থাকে তা গঠনমূলকভাবে তা কর্তৃপক্ষকে জানানোর জন্য আহ্বান করেন তিনি।

চট্টগ্রাম পুলিশ সুপার (অতিরিক্ত ডিআইজি পদে পদোন্নতিপ্রাপ্ত) নুরে আলম মিনার সভাপতিত্বে এবং এডিশনাল এসপি মহিউদ্দিন মাহমুদ সোহেলের সঞ্চালনায় উক্ত সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন চট্টগাম বন্দর ট্রাক মালিক সমিতির সভাপতি জহুর আহম্মদ চৌধুরী, চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সভাপতি ও চট্টগ্রাম আন্ত  জেলা বাস-মালিক সমিতির সভপতি কফিল উদ্দিন আহম্মেদ, প্রাইম ট্রেইলার ট্রাক মালিক সমিতির সেক্রেটারি আবুল হাশেম, ট্রাক কাভার্ড ভ্যান মালিক সমিতির সহাসচিব মোজাফফর হোসেন, সড়ক পরিবহন ফেডারেশন চট্টগ্রাম ও সিলেট অঞ্চলের সভাপতি মৃণাল চৌধুরীসহ, পরিবহন শ্রমিক, পরিবহন নেতৃবৃন্দ, গণমাধ্যম কর্মী ও প্রশাসনের উধ্বর্তন কর্মকর্তারা।

বিডিজার্নাল/আরডি

Share.

About Author

Comments are closed.