লাস্যময়ী শিক্ষকের ভূমিকায় আনুশকা শর্মা

0

বিনোদন ডেস্ক :

সবশেষ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছিলেন সেরিব্রাল পালসি রোগে ভোগা বিজ্ঞানীর ভূমিকায়। এবার গুঞ্জন, লাস্যময়ী শিক্ষকের ভূমিকায় রুপালি পর্দায় হাজির হতে চলেছেন আনুশকা শর্মা।

সুপারস্টার শাহরুখ খানের সঙ্গে জুটি বেঁধে ‘জিরো’-তে অভিনয়ের পর নতুন চলচ্চিত্রের নাম ঘোষণা করেননি আনুশকা শর্মা। অবশ্য বক্স অফিসে ‘জিরো’ সুপারফ্লপ হওয়ার পর শাহরুখও নতুন ছবির নাম ঘোষণা করেননি। তবে বি-টাউনে গুঞ্জন, ১৯৮২ সালে মুক্তি পাওয়া ‘সত্তে পে সত্তা’ ছবির রিমেকে হাজির হচ্ছেন ক্রিকেটার বিরাট কোহলির পত্নী।

ইন্ডিয়া টিভি নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রিমেকটি পরিচালনা করবেন ফারাহ খান। এতে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করবেন হৃতিক রোশন ও আনুশকা শর্মা। আর ছবিটি প্রযোজনা করবেন রোহিত শেঠি।

তবে কে হচ্ছেন নায়ক-নায়িকা, সে ব্যাপারে এখনো আনুষ্ঠানিক ঘোষণা আসেনি। সাম্প্রতিক প্রতিবেদন অনুযায়ী, ‘সত্তে পে সত্তা’র রিমেকে লাস্যময়ী শিক্ষকের ভূমিকায় দেখা যাবে আনুশকাকে। ‘ম্যায় হু না’ ছবিতে সুস্মিতা সেনের ‘মিস চাঁদনি’ চরিত্রটি বেশ জনপ্রিয় হয়েছিল। ওই ভূমিকার দ্বারা প্রভাবিত হয়েই আনুশকার চরিত্রটি নির্ধারণ করা হচ্ছে।

বিনোদনভিত্তিক সংবাদমাধ্যম স্পটবয়ের প্রতিবেদন বলছে, ‘সত্তে পে সত্তা’ ছবিতে হেমা মালিনী সুন্দরী নার্সের ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন। আর আনুশকা করবেন শিক্ষকের ভূমিকায়, যেটি সুস্মিতা সেনের চাঁদনি চরিত্রের আদলে। তবে আনুশকাকে সুস্মিতার মতো শাড়ি পরতে দেখা যাবে না। তাঁকে আধুনিক শিক্ষকের মতো দেখা যাবে, পরবেন ক্রপ জ্যাকেট ও গ্রীষ্মের পোশাক।

মূল ছবিতে হেমার বিপরীতে ছিলেন অমিতাভ বচ্চন, ছবিতে দ্বৈত ভূমিকায় অভিনয় করেন বিগ বি।এদিকে, এ-ও গুঞ্জন চলছে, হৃতিক রোশন নাকি এখনো চুক্তিবদ্ধ হননি এবং তিনি নাকি এ নিয়ে চিন্তাভাবনা করছেন। সাম্প্রতিক প্রতিবেদন বলছে, হৃতিকের বাবা রাকেশ রোশন নাকি ছবির চিত্রনাট্য পছন্দ করেননি। দ্বৈত চরিত্র তাঁর না-পছন্দ।

বিডি জার্নাল/এসএ

Share.

About Author

Comments are closed.