শিক্ষার ক্ষেত্রে ভারত-বাংলাদেশ পারস্পরিক সহযোগিতা অব্যাহত রয়েছে : ভারতীয় হাই কমিশনার

0

জার্নাল প্রতিবেদক :

বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাই কমিশনার রীভা গাঙ্গুলী দাস বলেছেন, ‘বাংলাদেশ ও ভারত পাশাপাশি অবস্থিত দুই বন্ধুপ্রতিম দেশ, অভিন্ন ইতিহাস ও সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের উত্তরাধিকারী। এই গৌরবময় উত্তরাধিকারকে ধরে রাখতে দুটি দেশের মানুষকে একসঙ্গে কাজ করে যেতে হবে। শুক্রবার সকালে আরসিসিআই পাবলিক স্কুল এ্যান্ড কলেজের বর্ধিতাংশ ৫ম তলার একাডেমিক ভবনের উদ্বোধনকালে তিনি এ কথা বলেন। 

ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্ক এখন নতুন অধ্যায়ে উপনীত হয়েছে। শিক্ষার ক্ষেত্রে ভারত-বাংলাদেশের মধ্যকার বিভিন্ন পারস্পরিক সহযোগিতা অব্যাহত রয়েছে। পারস্পারিক সুসম্পর্কের কারণে বাংলাদেশের মুক্তিযোদ্ধা সন্তানদের উচ্চ মাধ্যমিক ও স্নাতক পর্যায়ে শিক্ষা বৃত্তিসহ বাংলাদেশীদের জন্য ভারতের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ও ভারত সরকারের বিভিন্ন কারিগরি ট্রেডে বাংলাদেশী শিক্ষার্থীদের জন্য শিক্ষাবৃত্তির চালু রয়েছে। 

রিভা গাঙ্গুলী দাস আরো বলেছেন, ‘বাংলাদেশের জিডিপি প্রবৃদ্ধি ক্রমেই  বাড়ছে। ভারত ও বাংলাদেশের দুই প্রধানমন্ত্রীর সৌহার্দ্যের ভিত্তিতে ভারত সরকারের ১৯৩ মিলিয়ন ডলার সহায়তায় আগামী চার বছরে বাংলাদেশে ১২টি হাইটেক পার্ক নির্মাণের কাজ শেষ হবে। এগুলোতে ভারত এবং বাংলাদেশের সমন্বয়ে ৩০ হাজার যুবককে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষ আইটি জনশক্তি হিসেবে তৈরি করা হবে।’

অনুষ্ঠানে শুরুতে রীভা গাঙ্গুলী দাসকে স্কুল এ্যান্ড কলেজের পক্ষ থেকে ফুলেল শুভেচ্ছা ও স্মারক উপহার প্রদান করেন স্কুল এ্যান্ড কলেজের সভাপতি ও রংপুর চেম্বারের প্রেসিডেন্ট মোস্তফা সোহরাব চৌধুরী টিটু। এছাড়া রীভা গাঙ্গুলীও মোস্তফা সোহরাব চৌধুরী টিটুকে ভারত সরকারের পক্ষ থেকে মূল্যবান বই উপহার হিসেবে প্রদান করেন।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহীস্থ ভারতীয় দূতাবাসের সহকারি হাই কমিশনার সঞ্জীব কুমার ভাটী, স্কুল এ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মোহাম্মদ আব্দুল জলিল, রংপুর চেম্বারের সিনিয়র সহ-সভাপতি মোজতোবা হোসেন রিপন, রংপুর চেম্বার ও স্কুল এ্যান্ড কলেজ পরিচালনা পর্ষদের কর্মকর্তা ও পরিচালকবৃন্দ, চেম্বারের সাবেক কর্মকর্তা ও পরিচালকবৃন্দ, স্কুল এ্যান্ড কলেজের ছাত্র-ছাত্রী ও শিক্ষক/শিক্ষিকাবৃন্দ। 

বিডিজার্নাল

Share.

About Author

Comments are closed.