গোল্ডেন বুটের লড়াইয়ে এগিয়ে কেইন

0

ক্রীড়া ডেস্ক :

রাশিয়া বিশ্বকাপে দুর্বার গতিতে এগিয়ে চলেছেন হ্যারি কেইন। গ্রুপ পর্বে ২ ম্যাচে করেছিলেন ৫ গোল। ছিল একটি হ্যাটট্রিকও। তৃতীয় ম্যাচটা খেলেননি। মঙ্গলবার দ্বিতীয় পর্বে কলম্বিয়ার বিপক্ষে নক আউট ম্যাচেও গোল করলেন। এদিন পেনাল্টি থেকে গোলটি করেন তিনি। রাশিয়া বিশ্বকাপে ৩ ম্যাচে ৬ গোল করে সর্বোচ্চ গোলদাতার তালিকায় শীর্ষে কেইন। যেভাবে ছুটে চলেছেন তাতে গোল্ডেন বুট জয়ে একরকম অপ্রতিরুদ্ধই মনে হচ্ছে ইংলিশ অধিনায়ককে।
মঙ্গলবার কলম্বিয়াকে টাইব্রেকাকে ১(৪)-১(৩) ব্যবধানে হারায় ইংল্যান্ড। এদিন পেনাল্টি থেকেই কেইন গোল করে এগিয়ে দিয়েছিলেন দলকে। পরে যা পরিশোধ করে টাইব্রেকার পর্যন্ত ম্যাচ নিয়ে যায় কলম্বিয়া। এবারের বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত ৬ গোল করে গোলদাতার তালিকায় শীর্ষে কেইন। ৪ গোল করে দ্বিতীয় স্থানে আছেন বেলজিয়ামের রোমেরো লুকাকু। সমান সংখ্যক গোল ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোরও। ৩টি করে গোল আছে ছয় জনের। তারা হলেন- রাশিয়ার আর্টেম জুবা ও ডেনিস চেরিশিভ, ফ্রান্সের কিলিয়ান এমবাপে, কলম্বিয়ার ইয়েরি মিনা, স্পেনের ডিয়েগো কস্তা ও উরুগুয়ের এডিনসন কাভানি।
কেইনের সেরা প্রতিদ্বন্দ্বী তাই এখন লুকাকু। রোনালদোর পর্তুগাল বিদায় নিয়েছে শেষ ষোলো থেকেই। তাই রোনালদোর আর গোলের সুযোগ নেই। ৩টি করে গোল করাদের মধ্যে থেকেই কেউ উঠে আসতে পারেন। তবে তার জন্যও দরকার দুর্দান্ত নৈপুন্য। সেখানেও আবার কলম্বিয়ার ইয়েরি মিনা ও স্পেনের ডিয়েগো কস্তার সযোগ নেই দল বাদ পড়ে যাওয়ায়। আর্টেম জুবা, ডেনিস চেরিশিভ, কিলিয়ান এমবাপে বা কাভানি কি উঠে আসবেন কেইনকে চ্যালেঞ্জ জানাতে। যেভাবে কেইন আলো জ্বলে চলেছেন তাতে তাকে ধরা প্রায় অসম্ভই। এখন কোয়ার্টারেই যদি ইংল্যান্ডের যাত্রা থামে আর অন্যদের দল এগিয়ে যায় সেক্ষেত্রে ভিন্ন কিছু হতে পারে।

গ্রুপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে তিউনিশিয়ার বিপক্ষে জোড়া গোল করে গোল উৎসবের শুরু হ্যারি কেইনের। টটেনহ্যামের হয়ে দারুণ পারফর্ম করে এসেছেন বিশ্বকাপে। ২৪ বছর বয়সেই বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন তিনি। দলকে আসলে সামনে থেকেই নেতৃত্ব দিচ্ছেন কেইন। তিউনিসিয়ার বিপক্ষে তাই হ্যাটট্রিক করেন এই তারকা। ২টি গোল করেন পেনাল্টি থেকে। বেলজিয়ামের বিপক্ষে গ্রুপের শেষ ম্যাচে বিশ্রামে ছিলেন তিনি। নকআউট পর্বের প্রথম ম্যাচেই গোল করলেন। তাতে ৬ গোল কেইনের। যার ৩টিই পেনাল্টিতে।
বিশ্বকাপে ৬ গোল করেই গোল্ডেন বুট জয়ের ইতিহাস আছে। কেইনেরই স্বদেশী গ্যারি লিনেকারই আছেন সেই কীর্তির তালিকায়। এখন তার চেয়ে বেশি গোল করেও গোল্ডেন বুট জয়ের সুযোগ কেইনের সামনে। গেলবার ৬ গোল করেই গোল্ডেন বুট জিতেছিলেন হামেস রদ্রিগেজ। এই শতাব্দিতে সর্বোচ্চ ৮ গোল করে গোল্ডেন বুট জয় করেন রোনাল্ডো। ২০০২ বিশ্বকাপে সেই কীর্তি গড়েন তিনি।

ইতিহাস বলছে ১৯৭০ সালে ১০ গোল করে গোল্ডেন বুট জিতেছিলেন জার্ড মুলার। ১৯৫৪ সালে হাঙ্গেরির সান্দর কচিস করেছিলেন ১১ গোল। ১৯৫৮ সালে ১৩ গোল করার কৃতিত্ব দেখান ফ্রান্সের জুস্ত ফঁতেন।

সাব্বির// এসএমএইচ//৪ঠা জুলাই, ২০১৮ ইং ২০শে আষাঢ়, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Share.

About Author

Comments are closed.