সৌদি প্লেবয়ের সোনায় মোড়ানো ৬ গাড়ি!

0

বিডিজার্নাল আন্তর্জাতিক ডেস্ক :

সৌদি যুবরাজদের বিলাসী জীবন-যাপনের অভিযোগ নতুন কিছু নয়। কখনো মাদক কেলেঙ্কারী তো কখনো নারী কেলেঙ্কারীতে জড়িয়ে সংবাদের শিরোনামে আসেন হরহামশেই। এবার লণ্ডনে গ্রীষ্মকালীন ছুটি কাটাতে গিয়ে সৌদি আরবের এক প্লেবয়ের বিলাসী জীবন-যাপন নিয়ে ব্যাপক সমালোচনা শুরু হয়েছে।
রহস্য দেখা দিয়েছে সৌদি এই প্লেবয়কে ঘিরে। কেউ বলছেন, তিনি আরবের প্লেবয়, আবার কেউ বলছেন, তিনি সৌদি যুবরাজ। এছাড়া অনেকেই বলছেন, ধনী ব্যবসায়ী। এই মুহূর্তে লন্ডনে তিনিই আলোচনার মূল বিষয়। কিন্তু কেন? এর মূলে রয়েছে, ২৩ বছর বয়সী এই যুবকের ৬টি দামি গাড়িই সোনায় মোড়ানো। শুধু তাই নয়; সৌদি এই রহস্যময় যুবকের গাড়ির স্টিয়ারিংয়েও রয়েছে সোনার প্রলেপ। 
সৌদি এই যুবকের নাম তুর্কি বিন আবদুল্লাহ। গ্রীষ্মকালীন ছুটি কাটাতে গত মার্চে লন্ডনে যান তিনি। মার্কিন র‌্যাপার ডিআর দ্রির ঘনিষ্ট বন্ধু আবদুল্লাহ। লন্ডনের সবচেয়ে বিলাসবহুল ও দামি হোটেলে উঠেছেন তিনি। বন্ধুদের নিয়ে হোটেলে পার্টি করেই সময় কাটছে তার। 
সৌদি আরবের এই প্লেবয়ের ছয়টি বিলাসবহুল দামী গাড়ি রয়েছে। ৩ লাখ ৫০ হাজার পাউন্ডের একটি কাস্টম অ্যাভেন্তাদোর (মূল্য প্রায় বাংলাদেশি সাড়ে তিন কোটি টাকা), ৩ লাখ ৭০ হাজার পাউন্ডের ৬ চাকার মার্সেডিজ এএমজি অফ-রোডার (মূল্য প্রায় ৩ কোটি ৬০ লক্ষ টাকা), একটি ৩ লাখ ৫০ হাজার পাউন্ডের রোলস রয়েস ফ্যান্টম (মূল্য প্রায় সাড়ে তিন কোটি), ২ লাখ ২০ হাজার পাউন্ডের একটি বেন্টলি ফ্লাইং স্পার (মূল্য প্রায় ২ কোটি ১৫ লাখ টাকা) ও একটি ১ লাখ ৮০ হাজার পাউন্ড দামের ল্যাম্বর্গিনি হুরাক্যান (মূল্য প্রায় ১ কোটি ৮০ লাখ টাকা)। দাম যাই হোক না কেন, আশ্চর্যজনক তথ্য হচ্ছে, সব ক’টি গাড়িই সোনায় মোড়ানো। এসব গাড়ি আমদানি করেছেন মধ্যপ্রাচ্য থেকে।
সৌদি আরবের এই যুবককে নিয়ে পশ্চিমা গণমাধ্যমও যেন খানিকটা ধোঁয়াশায়। বেশ কিছু গণমাধ্যমের খবরে তার পরিচয় সম্পর্কে বলা হয়েছে, ওই যুবক সৌদি আরবের ধনাঢ্যশালী শেখ, প্লেবয়, সৌদি যুবরাজ কিংবা ব্যবসায়ী হতে পারেন। তার আসল পরিচয় সম্পর্কে কেউ এখনো নিশ্চিত নয়। তবে অনেকেই বলছেন, ওই যুবক সৌদি রাজপরিবারের সদস্য। 

বিডিজার্নাল৩৬৫ডটকম// আরডি/ এসএমএইচ // ৩ মে ২০১৬

Share.

About Author

Comments are closed.