বহুমাত্রিকতায় সমৃদ্ধ অনুপম সেনের সৃষ্টি সম্ভার

0

বিডিজার্নাল প্রতিনিধি  :

ড. অনুপম সেনের সৃষ্টি সম্ভার ও কর্মকীর্তি বহুমাত্রীকতায় সমৃদ্ধ। সহজ-সরল মানুষ তিনি। কখনো কারো প্রতি রাগ বা ক্ষোভ প্রকাশ তিনি করতে পারেন না। তাঁর সৃষ্টিতে সমাজ ব্যবস্থার সংকটময় পরিস্থিতির চিত্র উঠে এসেছে। এসব লেখা থেকে আমাদের করনীয় সম্পর্কে অনেক কিছুই জানা যাবে।

আজ মঙ্গলবার বিকালে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবে ‘অনুপম সেন এর সৃষ্টি সম্ভার ও কর্মকীর্তি’ শীর্ষক আলোচনা সভায় বক্তারা এমন অভিমত ব্যক্ত করেন। 

সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী। বিএড কলেজের সহযোগী অধ্যাপক শামসুদ্দীন শিশিরের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন চবি সমাজতত্ত্ব বিভাগের প্রফেসর ড. ওবায়দুল করিম। বক্তব্য রাখেন চবি  অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক ড. মঈনুল ইসলাম, বাংলা বিভাগের অধ্যাপক মুহিবুল আজিজ। 

ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, আমার শিক্ষক অনুপম সেনকে আমি ৩ মাত্রার মানুষ হিসাবে দেখি। ব্যক্তি, প-িত ও শিক্ষক অনুপম সেন। তিনি কতই উচুমানের শানিত ব্যক্তি তার সান্নিধ্যে না আসলে তা বুঝা যাবে না। স্যারের সমাজ দর্শন আমাদের অনুসরণ করতে হবে।

ড. মঈনুল ইসলাম বলেন, মানব উন্নয়নের মাধ্যমে সমাজ উন্নয়ন করতে হবে। এই থিসিস অনুপম সেন দাঁড় করিয়েছেন। তিনি যেখানে শেষ করেছেন আমি সেখান থেকেই শুরু করেছি। অনুপম সেন শুধু লিখে যান নি, সমাজ পরিবর্তনের মিশনেও তিনি ৪৪ বছর ব্যয় করেছেন।

ড. মুহিবুল আজিজ বলেন, অনুপম সেন বুদ্ধিজীবী, রচয়িতা, গবেষক, শিক্ষাবিদ।  প্রতিটি সংকটময় পরিস্থিতি নিয়ে তিনি প্রবন্ধ লিখেছেন। স্যারের লেখা থেকে সংকটময় পরিস্থিতি করনীয় সম্পর্কে অনেক কিছুই জানা যাবে।

অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে ড. অনুপম সেন বলেন, আমার সম্পর্কে যে কথা বলা হয়েছে বা আমাকে যেভাবে ব্যাখা করা হয়েছে সেটা সম্পর্কে আমার জানা নেই। 

তিনি বলেন, আমার কাজ সম্পর্কে বলার কিছুই দেখি না। অনেকেই ভাল লিখতে পারে, কেউ কেউ ভাল বলতে পারে। কেউ ভাল কাজও করতে পারে। আমরাও সেটার চেষ্টা করেছি।

বিডিজার্নাল৩৬৫ডটকম// পিবি/ এসএমএইচ// ২৪ নভেম্বর২০১৫

Share.

About Author

Leave A Reply